বৃহস্পতিবার, ১৩ মে ২০২১, ০৬:০২ পূর্বাহ্ন

রাতে রুটি খেলে ভয়ঙ্কর বিপদের সম্ভাবনা

admin
  • আপডেট টাইম : শনিবার ২ জানুয়ারী, ২০২১
  • ১০২১ বার পঠিত

অনলাইন ডেস্ক : রাতে ভাত খাওয়ার অভ্যাস অধিকাংশরই নেই। পাশাপাশি শীতকালে রুটি খাওয়ার প্রবণতা আরও বেড়ে যায়। ভাত খেলে শিরশিরানি ভাব সঙ্গে আলসেমি ঘিরে ধরে, তাই ভাত থেকে দুরে থাকতে চায় একাংশ। কারণ, তারা মনে করেন রুটি খেলেই সুস্থ থাকছে তারা। সকাল সকাল পেট পরিষ্কারও ভালো হয়ে থাকে। কিন্তু, এই রুটি রাতের বেলা খেলে ভয়ঙ্কর বিপদ ঘনিয়ে আসার আশঙ্কাকেও এড়িয়ে যাওয়া যায় না। রুটি খেলে আমাদের শরীরে এমন কিছু সমস্যা হতে পারে যা আমাদের শরীরের অনেক ক্ষতি করতে পারে।

গমের তৈরি খাবার আমাদের শরীরে কোলেস্টেরলের সমস্যা বৃদ্ধি করে। তাই হৃদরোগ বিশেষজ্ঞরা রাতে রুটি না খাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন। শুধু তাই নয়, রোগা হতে রুটি খাওয়ার অভ্যাস করেন অনেকে। মনে রাখবেন, রুটি খেলে আমাদের ত্বক অনেকটা কুচকে যায়। এমনকি ত্বকে বলিরেখাও দেখা দিতে পারে। এছাড়াও গমের তৈরি খাবারও বেশি খেলে মাথার চুল ঝরে যেতে পারে।

রোজ রাতে রুটি খেলে মানসিক অবসাদ ও ডিপ্রেশন বেড়ে যেতে পারে আপনার। এমনটাই উল্লেখ করেছে আমেরিকান জার্নাল অব ক্লিনিকাল নিউট্রিশন-এ প্রকাশিত প্রতিবেদনে। রুটি হজম করার ক্ষমতা সকলের থাকে না। এতে রক্তে শর্করার মাত্রা আস্তে আস্তে বাড়তে থাকে। উচ্চ রক্তচাপের সমস্যাও দেখা দিতে পারে। রাতে রুটি খেলে গ্যাসের সমস্যা হতে পারে। অসুস্থ বোধ করতে পারেন আপনি। তাই আপনার জন্য রাতে রুটি খাওয়াটা সঠিক সিদ্ধান্ত কিনা, তা নিয়ে ডায়েটেশিয়ানের কাছ থেকে পরামর্শ নিন। তবে আপনার শরীর রুটির সঙ্গে অভ্যস্ত হলে, ফিট চেহারার জন্য একেবারে আদর্শ। রুটিতে ক্যালোরির পরিমাণ খুবই কম। তাই রুটি খেলে শরীরের ওজন বৃদ্ধি হয় না। শরীরকে ফিট রাখে। রুটিতে যেহেতু ফ্যাট থাকে না। তাই রুটি খেলে ফ্যাট অর্থাৎ চর্বির আধিক্য হওয়ার সম্ভাবনা কমে।

শরীর গঠনে যে সকল ভিটামিন ও খনিজের দরকার হয় তার সিংহভাগ রুটিতে থাকে। তাই রোজ রাতে রুটি খেলে সেগুলো শরীরে সহজেই প্রবেশ করতে পারে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


এ জাতীয় আরো খবর..