মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ০৩:০৭ পূর্বাহ্ন

প্রশ্নপত্র ফাঁস এড়াতে নতুন নিয়মে প্রাথমিকে নিয়োগ পরীক্ষা

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট টাইম : রবিবার ১৩ মার্চ, ২০২২
  • ৩১ বার পঠিত

প্রশ্নপত্র ফাঁস এড়াতে এবং দুর্নীতি ও স্বজনপ্রীতি বন্ধ করতে ৫ ধাপে কেন্দ্রীয়ভাবে ঢাকায় অনুষ্ঠিত হবে প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা। আগামী ১ এপ্রিল থেকে লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর। এরপর পর্যায়ক্রমে ৮ এপ্রিল, ১৫ এপ্রিল ২২ এপ্রিল ও ২৯ এপ্রিল ঢাকা মহানগরীর বিভিন্ন কেন্দ্রে নিয়োগ পরীক্ষার অনুষ্ঠিত হবে।

নিয়োগ পরীক্ষার গ্রহণের জন্য কেন্দ্রের আসন সংখ্যার তথ্য চেয়ে গত ১০ মার্চ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক সোহেল আহমেদ স্বাক্ষরিত একটি চিঠি বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পাঠানো হয়েছে। সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানে সর্বোচ্চ কতজন পরীক্ষার্থীর আসন ব্যবস্থা করা যাবে তা আগামী ১৫ মার্চের মধ্যে চিঠিতে জানতে চাওয়া হয়েছে।

এর আগে আগামী এপ্রিলের মধ্যে নিয়োগ পরীক্ষা এবং জুলাইয়ে উত্তীর্ণ পরীক্ষার্থীদের নিয়োগ দেয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়। গত ১০ মার্চ মন্ত্রণালয়ে এ সংক্রান্ত সভায় জানানো হয়, সহকারী শিক্ষকের ৩২ হাজার ৫৭৭টি শূন্য পদে নিয়োগের জন্য প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর ২০২০ সালের ২০ অক্টোবর বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে। কিন্তু করোনা মহামারীর বাস্তবতায় নিয়োগ পরীক্ষা গ্রহণ সম্ভব হয়নি। ইতোমধ্যে অবসরজনিত কারণে আরো ১০ হাজারেরও বেশি সহকারী শিক্ষকের পদ শূন্য হয়ে পড়েছে। এতে বিদ্যালয়সমূহে শিক্ষক ঘাটতি দেখা দিয়েছে, যা পাঠদান কার্যক্রমকে ব্যাহত করছে।

এ সমস্যা নিরসনকল্পে মন্ত্রণালয় আগের বিজ্ঞপ্তির শূন্যপদ ও বিজ্ঞপ্তির পরের শূন্যপদ মিলিয়ে প্রায় ৪৫ হাজার সহকারী শিক্ষক নিয়োগের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.


এ জাতীয় আরো খবর..