শিরোনামঃ
সুচনাকে মেয়র হিসেবে গ্রহন করলেন ঢাকাস্থ কুমিল্লা মহানগর নাগরিক ফোরাম কক্সবাজারের সুগন্ধা বিচের নতুন নাম ‘বঙ্গবন্ধু বিচ’ করায় ধন্যবাদ জ্ঞাপন গ্রীস ফেরত অসুস্থ বেলায়েত হোসেনের পাশে প্রবাসী কল্যাণ ডেস্ক ও ব্র্যাক এই প্রথম ইসরায়েলের কোনো নাগরিকের ওপর নিষেধাজ্ঞা যুক্তরাষ্ট্রের স্ত্রী ও দুই সন্তানকে হত্যার পর ব্যবসায়ীর আত্মহত্যার চেষ্টা ৪ মাসে গাজায় নিহত হয়েছে ১০ হাজার হামাস যোদ্ধা : ইসরায়েল তুরাগতীরে দেশের বৃহত্তম জুমার জামাত আজ ১২শ স্বেচ্ছাসেবী নিয়ে প্যারিস খালে অভিযান শুরু মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ইরানে মৃত্যুবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে জোড়া বিস্ফোরণ, নিহত বেড়ে ১০৩

ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে উপজেলা যুবদল নেতা : জুড়ীতে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া

#
news image

মৌলভীবাজার জেলার জুড়ীতে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের দু'গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া, পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ সংঘর্ষে ছাত্রলীগের এক পক্ষের হয়ে উপজেলা যুবদলের যুগ্ম আহ্বায়ক সুলেমান আহমদের সক্রিয় অংশগ্রহণকে কেন্দ্র করে উপজেলা জুড়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে। ইতিমধ্যে যুবদল নেতা সুলেমানের ছবি ও ভিডিও সামাজিক যোগাযোগে মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে।

জানা যায়, বুধবার (৭ জুন ) দুপুরে উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সাহাব উদ্দিন সাবেল গ্রুপ ও উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইকবাল ভূঁইয়া উজ্জ্বল গ্রুপের নেতাকর্মীদের মধ্যে মিছিল দেয়াকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সংঘর্ষে উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইকবাল ভূঁইয়া উজ্জ্বল গ্রুপের হয়ে উপজেলা যুবদলের যুগ্ম আহ্বায়ক সুলেমান আহমদ ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ইটপাটকেল নিক্ষেপ ও লাঠিসোটা নিয়ে হামলায় অংশ নেয়। ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের হামলার ঘটনায় উপজেলা যুবদল নেতা সুলেমান আহমদের অংশগ্রহণের ভিডিও ও ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে উপজেলা জুড়ে তোলপাড় শুরু হয়। 

এ ব্যাপারে জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক এম এ মুহিত বলেন, এ বিষয়টির খোঁজ নেয়া হবে। ঘটনার সত্যতা প্রমাণিত হলে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ‌

জেলা যুবদলের সভাপতি জাকির হোসেন‌ উজ্জ্বল বলেন, বিষয়টি আমার নলেজে নেই। খোঁজ নিয়ে ‌শক্ত এভিডেন্স পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করব। 

উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মতিউর রহমান চুনু বলেন, এটি খুবই দুঃখজনক ও ন্যাক্কারজনক ঘটনা। ‌ সুলেমান যুবদল করলেও সে সবসময় আওয়ামীলীগের হয়ে কাজ করে।‌ সে আওয়ামী-যুবদল‌ করে।‌ বিএনপি'র কোন সভা সমাবেশে আমি তাকে কখনো দেখিনি। ‌ তিনি বলেন, 

জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি এবং মৌলভীবাজার -১ আসনে বিএনপি'র কর্ণধার আলহাজ্ব নাসির উদ্দিন মিঠুর সাথে আগামী ১০ জুনের অনুষ্ঠানে এ ব্যাপারে কথা বলবো এবং সুলেমানকে বহিস্কারের সুপারিশ দেবো।‌

এ বিষয়ে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও সদর জায়ফরনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাসুম রেজা বলেন, আমি বিষয়টি জেনেছি। এ বিষয়ে সত্যতা যাচাই করে জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ও মৌলভীবাজার -১ জড়ী বড়লেখা আসনে বিএনপি'র কর্ণধার আলহাজ্ব নাসির উদ্দিন মিঠু সাহেবের সাথে কথা বলে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

নিজেস্ব প্রতিবেদক

০৮ জুন, ২০২৩,  11:16 PM

news image

মৌলভীবাজার জেলার জুড়ীতে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের দু'গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া, পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ সংঘর্ষে ছাত্রলীগের এক পক্ষের হয়ে উপজেলা যুবদলের যুগ্ম আহ্বায়ক সুলেমান আহমদের সক্রিয় অংশগ্রহণকে কেন্দ্র করে উপজেলা জুড়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে। ইতিমধ্যে যুবদল নেতা সুলেমানের ছবি ও ভিডিও সামাজিক যোগাযোগে মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে।

জানা যায়, বুধবার (৭ জুন ) দুপুরে উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সাহাব উদ্দিন সাবেল গ্রুপ ও উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইকবাল ভূঁইয়া উজ্জ্বল গ্রুপের নেতাকর্মীদের মধ্যে মিছিল দেয়াকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সংঘর্ষে উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইকবাল ভূঁইয়া উজ্জ্বল গ্রুপের হয়ে উপজেলা যুবদলের যুগ্ম আহ্বায়ক সুলেমান আহমদ ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ইটপাটকেল নিক্ষেপ ও লাঠিসোটা নিয়ে হামলায় অংশ নেয়। ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের হামলার ঘটনায় উপজেলা যুবদল নেতা সুলেমান আহমদের অংশগ্রহণের ভিডিও ও ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে উপজেলা জুড়ে তোলপাড় শুরু হয়। 

এ ব্যাপারে জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক এম এ মুহিত বলেন, এ বিষয়টির খোঁজ নেয়া হবে। ঘটনার সত্যতা প্রমাণিত হলে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ‌

জেলা যুবদলের সভাপতি জাকির হোসেন‌ উজ্জ্বল বলেন, বিষয়টি আমার নলেজে নেই। খোঁজ নিয়ে ‌শক্ত এভিডেন্স পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করব। 

উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মতিউর রহমান চুনু বলেন, এটি খুবই দুঃখজনক ও ন্যাক্কারজনক ঘটনা। ‌ সুলেমান যুবদল করলেও সে সবসময় আওয়ামীলীগের হয়ে কাজ করে।‌ সে আওয়ামী-যুবদল‌ করে।‌ বিএনপি'র কোন সভা সমাবেশে আমি তাকে কখনো দেখিনি। ‌ তিনি বলেন, 

জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি এবং মৌলভীবাজার -১ আসনে বিএনপি'র কর্ণধার আলহাজ্ব নাসির উদ্দিন মিঠুর সাথে আগামী ১০ জুনের অনুষ্ঠানে এ ব্যাপারে কথা বলবো এবং সুলেমানকে বহিস্কারের সুপারিশ দেবো।‌

এ বিষয়ে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও সদর জায়ফরনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাসুম রেজা বলেন, আমি বিষয়টি জেনেছি। এ বিষয়ে সত্যতা যাচাই করে জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ও মৌলভীবাজার -১ জড়ী বড়লেখা আসনে বিএনপি'র কর্ণধার আলহাজ্ব নাসির উদ্দিন মিঠু সাহেবের সাথে কথা বলে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।