শিরোনামঃ
সুচনাকে মেয়র হিসেবে গ্রহন করলেন ঢাকাস্থ কুমিল্লা মহানগর নাগরিক ফোরাম কক্সবাজারের সুগন্ধা বিচের নতুন নাম ‘বঙ্গবন্ধু বিচ’ করায় ধন্যবাদ জ্ঞাপন গ্রীস ফেরত অসুস্থ বেলায়েত হোসেনের পাশে প্রবাসী কল্যাণ ডেস্ক ও ব্র্যাক এই প্রথম ইসরায়েলের কোনো নাগরিকের ওপর নিষেধাজ্ঞা যুক্তরাষ্ট্রের স্ত্রী ও দুই সন্তানকে হত্যার পর ব্যবসায়ীর আত্মহত্যার চেষ্টা ৪ মাসে গাজায় নিহত হয়েছে ১০ হাজার হামাস যোদ্ধা : ইসরায়েল তুরাগতীরে দেশের বৃহত্তম জুমার জামাত আজ ১২শ স্বেচ্ছাসেবী নিয়ে প্যারিস খালে অভিযান শুরু মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ইরানে মৃত্যুবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে জোড়া বিস্ফোরণ, নিহত বেড়ে ১০৩

সৌদির বিপক্ষে জিতেও গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় মেক্সিকোর

#
news image

কাতার বিশ^কাপে সি’ গ্রুপে শেষ রাউন্ডের ম্যাচে মেক্সিকো ২—১ গোলে হারিয়েছে সৌদি আরবকে। তবে এই  জয়ের পরও  গোল  ব্যবধানে পিছিয়ে থাকায় শেষ ষোলোতে যেতে  পারলো না মেক্সিকো। ৩—০ গোলে জিতলেই পরের রাউন্ডে যেতে পারতো তারা। এই জয়ে ৩ ম্যাচ শেষে মেক্সিকোর পয়েন্ট ৪।  সমানসংখ্যক ম্যাচে ৪ পয়েন্ট পোল্যান্ডেরও। কিন্তু পোল্যান্ডের সাথে গোল পার্থক্যে পিছিয়ে থাকায় গ্রুপ পর্ব থেকে বিশ^কাপ মিশন শেষ করলো মেক্সিকো।

গ্রুপ পর্বে ৩ ম্যাচে পোল্যান্ড গোল করেছে ২টি। গোল হজম করেছে ২টি। মেক্সিকো গোল দিয়েছে ২টি। গোল হজম করেছে ৩টি। ১ গোল বেশি হজম করায় নক—আউটে উঠতে পারলো না মেক্সিকো। গ্রুপ পর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে  আর্জেন্টিনাকে বিপক্ষে পাওয়া জয়ে ৩ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের তলানিতে থেকে বিশ^কাপ শেষ করলো সৌদি আরব। এই গ্রুপ থেকে আর্জেন্টিনা ও পোল্যান্ড শেষ ষোলোর টিকিট পায়।

গ্রুপে দুই রাউন্ডের খেলা শেষে সৌদি আরবের ছিলো ৩ পয়েন্ট। মেক্সিকোর ছিলো ১ পয়েন্ট। জয় পেলেই পরের রাউন্ডে খেলবে সৌদি। জিতলেও পোল্যান্ড—আর্জেন্টিনার ম্যাচের ফলাফলের উপর নির্ভর করবে মেক্সিকোর শেষ ষোলো। ড্র করলে শুধুমাত্র সুযোগ থাকবে সৌদির। এমন সমীকরণ নিয়েই  মাঠে নামে দলগুলো।

লুসাইল স্টেডিয়ামে আজ ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমন—পাল্টা আক্রমনে মনোযোগি ছিলো মেক্সিকো ও সৌদি আরব। প্রথম ৮ মিনিটেই দু’বার করে আক্রমন করে তারা। গোলের দেখা পায়নি কোন দলই। ২৫ মিনিটে গোলের ভালো সুযোগ পেয়েছিলো মেক্সিকো। স্ট্রাইকার হেনরি মার্টিনের পাস থেকে বক্সের ভেতর থেকে শট নেন মিডফিল্ডার ওরবেলিন পিনেডা। তবে সে  শট দক্ষতার সাথে রুখে দেন সৌদির গোলরক্ষক আল—ওয়েসিস। এরপর ৩৬ মিনিটে মাঝমাঠ থেকে আক্রমন রচনা করে গোলের সুযোগ হাতছাড়া করে মেক্সিকো। কণার্র থেকে বল পেয়ে বাঁ—প্রান্ত দিয়ে সৌদির বক্সে ক্রস করেন স্ট্রাইকার এ্যালেক্সিস ভেগা। তবে সেটি গোলবারের উপর দিয়ে শট নেন ডিফেন্ডার জেসুস গালারডো।

মেক্সিকোর একক আধিপত্যের   পরও গোলশূন্যভাবে শেষ হয় ম্যাচের প্রথমার্ধ। বেশি সময় বল দখলে রাখার পাশাপাশি নয়বার আক্রমন করে তারা।প্রথমার্ধে দুদার্ন্ত খেলার ধারাবাহিকতা দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই ফুটিয়ে তুলে মেক্সিকো। দ্বিতীয় ভাগের খেলা শুরুর ৭ মিনিটের মধ্যে ২টি গোল করে তারা। ৪৭ মিনিটে কণার্র থেকে উড়ে আসা বলে হেডে বক্সের ভেতর থাকা মার্টিনকে পাস দেন ডিফেন্ডার সিজার মন্টেমস। বল পেয়েই বাঁ—পায়ের শটে গোল আদায় করে নেন মার্টিন(১—০)। ৫ মিনিট পর ব্যবধান দ্বিগুন করে ফেলে মেক্সিকো। ডান—প্রান্তে পাওয়া ফ্রি—কিক থেকে বাঁ—পায়ের শটে গোল করেন মিডফিল্ডার লুইস শাভেজ। ২—০ গোলে এগিয়ে চালকের আসনে বসে যায় মেক্সিকো।

তারপরও বল দখলে রেখে আক্রমন অব্যাহত রাখে মেক্সিকো। অন্য দিকে ম্যাচে ফিরতে আক্রমন করার চেষ্টা করে সৌদিও। ৬২ ও ৬৭ মিনিটের সৌদির দু’টি আক্রমনেই বাঁধা হয়ে দাঁড়ান  মেক্সিকোর গোলরক্ষক ও ডিফেন্ডাররা। ইনজুরি সময়ের পঞ্চম মিনিটে সৌদির পক্ষে গোল করে ব্যবধান কমান মিডফিল্ডার সালেম আল ডসারি। এই গোল হজমে  শেষ ষোলো থেকে  ছিটকে পড়ে মেক্সিকো। অবশ্য এই গোল হজম না করলেও, নক—আউটে উঠতে পারতো না তারা। কারন পোল্যান্ডের চেয়ে বেশি কার্ড দেখেছে তারা। সৌদির বিপক্ষে ৩—০ গোলে জিতলে পরের রাউন্ডে যেতে পারতো মেক্সিকো। শেষ পর্যন্ত ২—১ গোলে জিতেও হতাশা নিয়ে মাঠ ছাড়তে হলো মেক্সিকোকে।

প্রভাতী খবর ডেস্ক

০১ ডিসেম্বর, ২০২২,  10:16 PM

news image

কাতার বিশ^কাপে সি’ গ্রুপে শেষ রাউন্ডের ম্যাচে মেক্সিকো ২—১ গোলে হারিয়েছে সৌদি আরবকে। তবে এই  জয়ের পরও  গোল  ব্যবধানে পিছিয়ে থাকায় শেষ ষোলোতে যেতে  পারলো না মেক্সিকো। ৩—০ গোলে জিতলেই পরের রাউন্ডে যেতে পারতো তারা। এই জয়ে ৩ ম্যাচ শেষে মেক্সিকোর পয়েন্ট ৪।  সমানসংখ্যক ম্যাচে ৪ পয়েন্ট পোল্যান্ডেরও। কিন্তু পোল্যান্ডের সাথে গোল পার্থক্যে পিছিয়ে থাকায় গ্রুপ পর্ব থেকে বিশ^কাপ মিশন শেষ করলো মেক্সিকো।

গ্রুপ পর্বে ৩ ম্যাচে পোল্যান্ড গোল করেছে ২টি। গোল হজম করেছে ২টি। মেক্সিকো গোল দিয়েছে ২টি। গোল হজম করেছে ৩টি। ১ গোল বেশি হজম করায় নক—আউটে উঠতে পারলো না মেক্সিকো। গ্রুপ পর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে  আর্জেন্টিনাকে বিপক্ষে পাওয়া জয়ে ৩ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের তলানিতে থেকে বিশ^কাপ শেষ করলো সৌদি আরব। এই গ্রুপ থেকে আর্জেন্টিনা ও পোল্যান্ড শেষ ষোলোর টিকিট পায়।

গ্রুপে দুই রাউন্ডের খেলা শেষে সৌদি আরবের ছিলো ৩ পয়েন্ট। মেক্সিকোর ছিলো ১ পয়েন্ট। জয় পেলেই পরের রাউন্ডে খেলবে সৌদি। জিতলেও পোল্যান্ড—আর্জেন্টিনার ম্যাচের ফলাফলের উপর নির্ভর করবে মেক্সিকোর শেষ ষোলো। ড্র করলে শুধুমাত্র সুযোগ থাকবে সৌদির। এমন সমীকরণ নিয়েই  মাঠে নামে দলগুলো।

লুসাইল স্টেডিয়ামে আজ ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমন—পাল্টা আক্রমনে মনোযোগি ছিলো মেক্সিকো ও সৌদি আরব। প্রথম ৮ মিনিটেই দু’বার করে আক্রমন করে তারা। গোলের দেখা পায়নি কোন দলই। ২৫ মিনিটে গোলের ভালো সুযোগ পেয়েছিলো মেক্সিকো। স্ট্রাইকার হেনরি মার্টিনের পাস থেকে বক্সের ভেতর থেকে শট নেন মিডফিল্ডার ওরবেলিন পিনেডা। তবে সে  শট দক্ষতার সাথে রুখে দেন সৌদির গোলরক্ষক আল—ওয়েসিস। এরপর ৩৬ মিনিটে মাঝমাঠ থেকে আক্রমন রচনা করে গোলের সুযোগ হাতছাড়া করে মেক্সিকো। কণার্র থেকে বল পেয়ে বাঁ—প্রান্ত দিয়ে সৌদির বক্সে ক্রস করেন স্ট্রাইকার এ্যালেক্সিস ভেগা। তবে সেটি গোলবারের উপর দিয়ে শট নেন ডিফেন্ডার জেসুস গালারডো।

মেক্সিকোর একক আধিপত্যের   পরও গোলশূন্যভাবে শেষ হয় ম্যাচের প্রথমার্ধ। বেশি সময় বল দখলে রাখার পাশাপাশি নয়বার আক্রমন করে তারা।প্রথমার্ধে দুদার্ন্ত খেলার ধারাবাহিকতা দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই ফুটিয়ে তুলে মেক্সিকো। দ্বিতীয় ভাগের খেলা শুরুর ৭ মিনিটের মধ্যে ২টি গোল করে তারা। ৪৭ মিনিটে কণার্র থেকে উড়ে আসা বলে হেডে বক্সের ভেতর থাকা মার্টিনকে পাস দেন ডিফেন্ডার সিজার মন্টেমস। বল পেয়েই বাঁ—পায়ের শটে গোল আদায় করে নেন মার্টিন(১—০)। ৫ মিনিট পর ব্যবধান দ্বিগুন করে ফেলে মেক্সিকো। ডান—প্রান্তে পাওয়া ফ্রি—কিক থেকে বাঁ—পায়ের শটে গোল করেন মিডফিল্ডার লুইস শাভেজ। ২—০ গোলে এগিয়ে চালকের আসনে বসে যায় মেক্সিকো।

তারপরও বল দখলে রেখে আক্রমন অব্যাহত রাখে মেক্সিকো। অন্য দিকে ম্যাচে ফিরতে আক্রমন করার চেষ্টা করে সৌদিও। ৬২ ও ৬৭ মিনিটের সৌদির দু’টি আক্রমনেই বাঁধা হয়ে দাঁড়ান  মেক্সিকোর গোলরক্ষক ও ডিফেন্ডাররা। ইনজুরি সময়ের পঞ্চম মিনিটে সৌদির পক্ষে গোল করে ব্যবধান কমান মিডফিল্ডার সালেম আল ডসারি। এই গোল হজমে  শেষ ষোলো থেকে  ছিটকে পড়ে মেক্সিকো। অবশ্য এই গোল হজম না করলেও, নক—আউটে উঠতে পারতো না তারা। কারন পোল্যান্ডের চেয়ে বেশি কার্ড দেখেছে তারা। সৌদির বিপক্ষে ৩—০ গোলে জিতলে পরের রাউন্ডে যেতে পারতো মেক্সিকো। শেষ পর্যন্ত ২—১ গোলে জিতেও হতাশা নিয়ে মাঠ ছাড়তে হলো মেক্সিকোকে।