শিরোনামঃ
সুচনাকে মেয়র হিসেবে গ্রহন করলেন ঢাকাস্থ কুমিল্লা মহানগর নাগরিক ফোরাম কক্সবাজারের সুগন্ধা বিচের নতুন নাম ‘বঙ্গবন্ধু বিচ’ করায় ধন্যবাদ জ্ঞাপন গ্রীস ফেরত অসুস্থ বেলায়েত হোসেনের পাশে প্রবাসী কল্যাণ ডেস্ক ও ব্র্যাক এই প্রথম ইসরায়েলের কোনো নাগরিকের ওপর নিষেধাজ্ঞা যুক্তরাষ্ট্রের স্ত্রী ও দুই সন্তানকে হত্যার পর ব্যবসায়ীর আত্মহত্যার চেষ্টা ৪ মাসে গাজায় নিহত হয়েছে ১০ হাজার হামাস যোদ্ধা : ইসরায়েল তুরাগতীরে দেশের বৃহত্তম জুমার জামাত আজ ১২শ স্বেচ্ছাসেবী নিয়ে প্যারিস খালে অভিযান শুরু মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ইরানে মৃত্যুবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে জোড়া বিস্ফোরণ, নিহত বেড়ে ১০৩

‘অবশ্যই ফল আসবে, হয় আমরা জিতব না হয় ওরা’

#
news image

চট্টগ্রাম টেস্টে বাংলাদেশ এমন এক জায়গায় দাঁড়িয়ে, যেখান থেকে হার এড়ানো কঠিন। হার এড়ানো মানে ড্র করতে হলে শেষ দুদিন পুরো সময় ব্যাট করতে হবে টাইগারদের।

উইকেটের যে অবস্থা, তাতে সেটা খুবই কঠিন কাজ হবে। আর জেতাটা তো আরও কঠিন। জিততে হলে যে বিশ্বরেকর্ড গড়তে হবে! টেস্টে সবচেয়ে বেশি রান তাড়া করে জেতার বিশ্বরেকর্ড যেখানে ৪১৮ রানের (২০০৩ সালে অ্যান্টিগায় অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৪১৮ রান তাড়া করে জিতেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ), সেখানে বাংলাদেশকে ভারত টার্গেট দিয়েছে ৫১৩ রানের।

এই পাহাড় সমান রান টপকে কখনো কোনো দল জেতেনি। চট্টগ্রামে সে প্রায় অসম্ভব কাজটিই করতে হবে সাকিব বাহিনীকে। টেস্টের তৃতীয় দিন বিনা উইকেটে ৪২ রান তোলায় বাংলাদেশের জয়ের জন্য বাকি আর ৪৭১ রান। বলতে গেলে অসম্ভব এক লক্ষ্যই।

কী ভাবছে সাকিবের দল? তৃতীয় দিন শেষে দলের প্রতিনিধি হয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসা টাইগার অলরাউন্ডার মেহেদি হাসান মিরাজ জানালেন, আসলে এমন পরিস্থিতি থেকে ড্র করা সম্ভব নয়। তার কথা, ‘অবশ্যই এই ম্যাচে ফল আসবে। হয় আমরা জিতব, না হয় ওরা জিতবে।’

মিরাজের অনুভব, ‘এখন যা করার ব্যাটারদেরই করতে হবে। ব্যাটারদের দায়িত্ব নিয়ে খেলতে হবে। কারণ এখনো দুদিন বাকি। রানও অনেক বাকি। আমার কাছে মনে হয় ব্যাটারদের উইকেটে থাকতে হবে।’

তা কি সম্ভব? উইকেটের অবস্থা কী? মিরাজ জানালেন, ‘উইকেট তো ভালো ছিল, এখনো ভালো আছে। একটা জিনিস হচ্ছে, বাস্তবায়ন করাটা খুব জরুরি। ভালো সিদ্ধান্ত নেওয়া, পরিষ্কার মানসিকতা নিয়ে খেলা খুব প্রয়োজন।’

তার দাবি, প্রথম ইনিংসের ভুলটা কোথায় হয়েছিল, তা তাদের জানা হয়ে গেছে। তাই মিরাজের মুখে এমন কথা, ‘আমার মনে হয়, আমরা ব্যাটাররা বুঝতে পেরেছি আমাদের কোথায় ঘাটতি রয়েছে, প্রথম ইনিংসে আমরা কীভাবে আউট হয়েছি। আমি আশা করি ভালো একটা খেলা হবে, হার-জিত তো অনেক পরের ব্যাপার। এখনো দুদিন বাকি আছে। আমি আশা করি আমাদের ব্যাটাররা ভালো খেলবে।’

কাঁধে ব্যথার কারণে প্রথম ইনিংসে ১২ ওভার বল করেছিলেন। দ্বিতীয় ইনিংসে ফিল্ডিংয়ে থাকলেও একটি বলও করেননি অধিনায়ক সাকিব। আর পেসার এবাদত হোসেন ফিল্ডিংয়েই নামেননি। কেন? শুক্রবার খেলা শেষে মিরাজের জানালেন, ‘এবাদত হালকা ব্যথা পেয়েছে। এখন ভালো আছে। বড় ইনজুরি না। ভালো আছে।’

স্পোর্টস ডেস্ক

১৭ ডিসেম্বর, ২০২২,  2:07 AM

news image

চট্টগ্রাম টেস্টে বাংলাদেশ এমন এক জায়গায় দাঁড়িয়ে, যেখান থেকে হার এড়ানো কঠিন। হার এড়ানো মানে ড্র করতে হলে শেষ দুদিন পুরো সময় ব্যাট করতে হবে টাইগারদের।

উইকেটের যে অবস্থা, তাতে সেটা খুবই কঠিন কাজ হবে। আর জেতাটা তো আরও কঠিন। জিততে হলে যে বিশ্বরেকর্ড গড়তে হবে! টেস্টে সবচেয়ে বেশি রান তাড়া করে জেতার বিশ্বরেকর্ড যেখানে ৪১৮ রানের (২০০৩ সালে অ্যান্টিগায় অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৪১৮ রান তাড়া করে জিতেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ), সেখানে বাংলাদেশকে ভারত টার্গেট দিয়েছে ৫১৩ রানের।

এই পাহাড় সমান রান টপকে কখনো কোনো দল জেতেনি। চট্টগ্রামে সে প্রায় অসম্ভব কাজটিই করতে হবে সাকিব বাহিনীকে। টেস্টের তৃতীয় দিন বিনা উইকেটে ৪২ রান তোলায় বাংলাদেশের জয়ের জন্য বাকি আর ৪৭১ রান। বলতে গেলে অসম্ভব এক লক্ষ্যই।

কী ভাবছে সাকিবের দল? তৃতীয় দিন শেষে দলের প্রতিনিধি হয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসা টাইগার অলরাউন্ডার মেহেদি হাসান মিরাজ জানালেন, আসলে এমন পরিস্থিতি থেকে ড্র করা সম্ভব নয়। তার কথা, ‘অবশ্যই এই ম্যাচে ফল আসবে। হয় আমরা জিতব, না হয় ওরা জিতবে।’

মিরাজের অনুভব, ‘এখন যা করার ব্যাটারদেরই করতে হবে। ব্যাটারদের দায়িত্ব নিয়ে খেলতে হবে। কারণ এখনো দুদিন বাকি। রানও অনেক বাকি। আমার কাছে মনে হয় ব্যাটারদের উইকেটে থাকতে হবে।’

তা কি সম্ভব? উইকেটের অবস্থা কী? মিরাজ জানালেন, ‘উইকেট তো ভালো ছিল, এখনো ভালো আছে। একটা জিনিস হচ্ছে, বাস্তবায়ন করাটা খুব জরুরি। ভালো সিদ্ধান্ত নেওয়া, পরিষ্কার মানসিকতা নিয়ে খেলা খুব প্রয়োজন।’

তার দাবি, প্রথম ইনিংসের ভুলটা কোথায় হয়েছিল, তা তাদের জানা হয়ে গেছে। তাই মিরাজের মুখে এমন কথা, ‘আমার মনে হয়, আমরা ব্যাটাররা বুঝতে পেরেছি আমাদের কোথায় ঘাটতি রয়েছে, প্রথম ইনিংসে আমরা কীভাবে আউট হয়েছি। আমি আশা করি ভালো একটা খেলা হবে, হার-জিত তো অনেক পরের ব্যাপার। এখনো দুদিন বাকি আছে। আমি আশা করি আমাদের ব্যাটাররা ভালো খেলবে।’

কাঁধে ব্যথার কারণে প্রথম ইনিংসে ১২ ওভার বল করেছিলেন। দ্বিতীয় ইনিংসে ফিল্ডিংয়ে থাকলেও একটি বলও করেননি অধিনায়ক সাকিব। আর পেসার এবাদত হোসেন ফিল্ডিংয়েই নামেননি। কেন? শুক্রবার খেলা শেষে মিরাজের জানালেন, ‘এবাদত হালকা ব্যথা পেয়েছে। এখন ভালো আছে। বড় ইনজুরি না। ভালো আছে।’